তৈমুর খান এর তিনটি কবিতা





সক্রেটিসের শেষ রাত্রি


বিষের পেয়ালা আজ অমৃত বলে পান করি
প্রেমিকের রোগা হাতে ছুঁই না তোমাকে
কে দেবে শুশ্রূষা বলো—
আমাদের সম্পর্কের সব লাবণ্য ঝরে গেলে?

চারিদিকে ভেজাগন্ধ পোশাকে-আশাকে
রোদ্দুরে মাছির মতো উড়ে উড়ে আসি
কী উৎসবে বেজে ওঠে দিন?
রাতগুলি স্বপ্নহীন—কে ভাবে কাকে!

দূরে কোন্ আলেয়ার আলো
জ্বলে উঠে নিভে যায়—
শেয়ালের মতো চোখ জ্বলে
আগুনের হাতে-হাতে উড়ে আসে ছাই।




নিশিযাপন


পরিচয় আড়াল করে রাখি
তবু টের পাই
ধার্মিকেরা সংবিধান লেখে;

ধার্মিক কাদের বলে?
কোনোদিন জানা হল নাকো—
সভ্যতা কেটে যায় রক্তপাত দেখে

রাত ঘুমিয়ে পড়লে একা
হৃৎপিণ্ড বেরিয়ে আসে—

সাহিত্য ডট ইন


ডুগডুগি


কে বাজায় আমাকে রোজ? কে বাজায়?
মেরুদন্ড সোজা করার আগেই
আবার মেরুদন্ড বেঁকে যায়—

বেজে বেজে এখন নিজেকে
নিজেরই কৌতুক মনে হয়!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

1 মন্তব্যসমূহ

  1. সাহিত্য ইন এর সকল সভ্যবৃন্দকে ঈদ মোবারক।
    খুব সুন্দর একটি সংখ্যা উপহার দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।
    কবিতার মায়াজাল বিছিয়েছেন তৈমুর খান, জহির খান মোহাম্মদ হোসাইন। যথেষ্ট মুন্সিয়ানার পরিচয় তাদের কবিতার প্রতি ছত্রে বিদ্যমান। অনেক অনেক শুভেচ্ছা

    উত্তরমুছুন