দুটি কবিতা || হারাধন বৈরাগী


আমার আদিম জোৎস্না

পেরিয়ে যাচ্ছি খাদ পাহাড় অবাক উল্থান
মাড়িয়ে যাচ্ছি ঘাস জঙ্গল স্মাংনোর হাহাকার
রেশমের সুতো যেন গুটিয়ে নিচ্ছে মায়াতাঁত
বুকের ভেতর কঙ্কনধ্বণি স্পন্দিত স্বপ্নপ্রপাত
ছেড়ে যাচ্ছি জীর্ণদেহের ইন্দ্রজালিক ছড়
রেখে যাচ্ছি বিমূঢ় সূর্য গলনাঙ্কের চাঁদ 
অদূরেই শোনা যাচ্ছে জলকল্লোল কার--
আমার আদিম জোৎস্না
পেরিয়ে যাচ্ছি তোমাকে এবার! 


রেঙ
বিকেলের সূর্য ডুবু ডুবু প্রায়
জঙ্গলের কিনারায়
শরীর থেকে ঝরে পড়ছে
মামিরাং মিঠাই
মলুইমা হাওয়ার মতো
সোহাগ জ্বেলে যায়
রেঙ ওঠে শিরায় শিরায়
একটার পর একটা---
ছিটকে বেরিয়ে যায়

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ